ঢাকা জেলার বিভিন্ন তথ্য

ঢাকা জেলার বিভিন্ন তথ্য

জেলার তথ্য

আমাদের বাংলাদশ মোট ৬৪টি জেলা নিযে গঠিত। যার মধ্যে ঢাকা জেলা অন্যতম একটি জেলা হিসেবে পরিচিত। সবচেয় ঘনবসিতি জেলা এটি। এমন ঘন বসতি জেলা বাংলাদেশের আর কোথাও দেখা যায় না। নিচে ঢকা জেলার বিভিন্ন তথ্য আলোচনা করা হলো:

ঢাকা জেলার মানচিত্র:

Dhaka District
Dhaka District

আয়তন: ঢাকা জেলাটি ১৬৮৩.২৭ বর্গ কিলোমিটার জায়গা নিয় গঠিত।

জেলা কোড: ঢাকা ৪০

ঢাকা নামকরনের ইতিহাস

ঢাকা বিভাগ বাংলাদেশের আটটি প্রশাসনিক বিভাগের অন্যতম। এটি বাংলাদেশের কেন্দে অবস্থিত। বর্তমানে ঢাকা ও বরিশাল বিভাগের সাথে সীমান্তবর্তী কোন জেলা নেই। আয়তনে ঢাকা জেলার বৃহত্তম জেলা টাঙ্গাইল।

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকা মোঘল-পূর্ব যুগে কিছু গুরুত্বধারন করলেও শহরটি ইতিহারে প্রসিদ্বি লাভ করে মোঘল যুগে। ঢাকা নামের উৎপত্তি সম্পর্কে স্পষ্ট কর তেমন কিছু জানা যায় না। এ সম্পর্কে প্রচলিত মতগুলোর মধ্যে কয়েকটি নিম্নরূপ:

১. এক সময় এ অঞ্চলে প্রচুর ঢকা গাছ ছিলো।

২. রাজধানী উদ্বোধনের দিনে ইসলাম খানের র্নিেশে এখানে ঢাক অর্থৎ ড্রাম বাজানো হয়েছিল।

৩. ‘ঢাকা ভাষা’ নামে একটি প্রকৃত ভাষা এখানে প্রচলিত ছিলো।

৪. রাজতরঙ্গিণী-তে ঢক্কা শব্দটি ‘পর্ঙবেক্ষণ কেন্দ্র’ হিসেসে উল্লেখিত হয়েছে অথবা এলাহাবাদ শিলালিপিতে উল্লেখিত সমুদ্রগুপ্তের পূব্যাঞ্চলীয় রাজ্য ডবাকই হলো ঢাকা।

কথিত আছে যে, সেন বংশের রাজা বল্লালসেন বুড়িগঙ্গা নদীর তীরবর্তী এলাকায় ব্রমণকালে সন্নিহিত জঙ্গলে হিন্দু দেবী দুর্গার বিগ্রহ খুঁজে পান। দেবী গুর্গার প্রতি শ্রদ্ধাস্বরুপ রাজা বল্লাল সেন ঐ এলাকায় একটি মন্দির প্রতিষ্ঠা করেন। যহেতু দেবীর বিগ্রহ ঢাকা বা গুপ্ত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছিল তাই রাজা মন্দিরের নাম ঢাকেশ্বরী মন্দির। মন্দিরের নাম থেকেই কালক্রমে স্থনটির নাম ঢাকা হিসেবে গড়ে ওঠে। আবার অনেক ঐতিহাসিকদের মতে , মোঘণলসম্রাট জাহাঙ্গীর যখন ঢকাকে সুবা বাংলার রাজধানী হিসেবে ঘোষনা করেন, তখন সুবাদার ইসলাম খান আনন্দের বহিঃপ্রকাশ স্বরুপ শহরে ‘ঢাক’ বাজানোর নির্দেশ দেন। এই ঢাক বাজারর কাহিনী লোকমুখে কিংবনন্দির রুপ ধারণ করে এবং তা থেকেই এই শহরের নামঢাকা হয়ে যায়্ এখানে উল্লেখ্য যে, ১৬১০ খ্রিষ্টাব্দে েইসলাম খা চিশতি সুবাহ বাংলার রাজধানী রাজমহল থেকে ফকায় স্থানান্তর করেন এবং সম্রাটের নামানুসারে এর নামকরণ করে জাহাঙ্গীরনগর।

বিখ্যাত খাবার

বাকরখানি

বিরিয়ানি

বিখ্যাত স্থান

বাহাদুর শাহ্ পার্ক

বলধা গার্ডেন

ওসমানি উদ্যান ও বিবি মরিয়ম কামান

বোটানিক্যাল গার্ডেন

রমনা পার্ক

ধানমন্ডি লেক

গুলশান লেক পার্ক

শিশু পার্ক

শ্যামলী শিশু মেলা

চিড়িয়াখানা

লালবাগ কেল্লা

জিনজিরা প্রসাদ

আহসান মঞ্জিল

কার্জন হল

জড়কাটরা

ছোট কাটরা

নিমতলীর কুঠিবাড়ি

রোজ গার্ডেন

তারা মসজিদ

ঢাকেম্বরী মন্দির

আর্মেনিয় গির্জা

শহীদ মিনার

বধ্যভূমি স্মৃতিসৌধ

জাদুঘর

জাতীয় সংসদ ভবন

ভাসানি নভোথিয়েটার

ফ্যান্টাসি কিংডম

নন্দন পার্ক

বিজ্ঞান জাদুঘর

মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর

শতীদ বুদ্ধিজীবি কবরস্থান

সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধ

পিকনিক স্পট

ঢাকার আশে পাশে যে সমস্ত পিকনিক স্পট রয়েছে এর মধ্যে মৌচাক, গাজীপুর, ভাওয়াল পুষ্টদাম(পিকনিক স্পট ও সুটিং স্পট, বাঘর বাজার গাজীপুর), রাজেন্দ্রপুর, মধুপুর, শফিপুর, শ্রীপুর, বোটানিক্যাল গার্ডেন, চন্দ্রা, সালনা, কুমিল্লার বার্ড, লালমাই পাহাড়, কোটবাড়ী ইত্যাদি স্থান উল্লেখ্যযোগ্য।

বিখ্যাত বস্তু

বেনারসী শাড়ি

ঢাকা জেলার উপজেলাসমূহ

  1. ধামরাই উপজেলা
  2. দোহার উপজেলা
  3. সাভার উপজেলা
  4. কেরানীগঞ্জ উপজেলা
  5. নবাবগঞ্জ উপজেলা

আজকের মত এখানেই শেষ করছি ঢাকা জেলার বিভিন্ন তথ্য সম্পর্কে আলোচনা। আগামী পোস্টে আরো ভালো তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করব। তো সকলেই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন।

1 thought on “ঢাকা জেলার বিভিন্ন তথ্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *