গাজীপুর জেলার বিভিন্ন তথ্য

গাজীপুর জেলার বিভিন্ন তথ্য

বাংলাদেশে ৬৪ জেলার মধ্যে গাজীপুর জেলাটি অন্যতম। এ জেলাতে বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠান যা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক বড় অবদান রেখেছে। যার মাধ্যমে লাখো মানুষের কর্মসংস্থান। তো শুরু করছি গাজীপুর জেলার বিভিন্ন তথ্য আলোচনা।

আয়তন

১৭৭০.৫৮ বর্গ কিলোমিটার

জেলা কোড

গাজীপুর ৪১

নামকরনের ইতিহাস

বিলু কবীরের লেখা বাংলাদেশের জেলা: নামকরনের ইতিহাস বই থেকে জানা যায়, মহম্মদ বিন তুঘলকের শসনকালে জনৈক মুসলিম কুস্তিগির গাজী এ অঞ্চলে বসতি স্থাপন করেছিলেন এবং তিনি বহু দিন সাফল্যের সাথে এ অঞ্চল শাসন করেছিলেন। অনেকের ভাস্য মতে এ কুস্তিগির/ পাহলোয়ান গাজীর নামানুসারেই এ অঞ্চলের নাম রাখা হয় গাজীপুর বলে লোকশ্রুতি রয়েছে। এটা অনেকেই কখনো বলে থাকেন।

আরেকটি জনশ্রুতি এ রকম সম্রাট আকবরের সময় চব্বিশ পরগনার জায়গিরদার ছিলেন ঈশা খাঁ। এই ঈশা খাাঁরই একজন অনুসারীর ছেলের নাম ছিল ফজল গাজী। যিনি ছিলেন ভওয়াল রাজ্যের প্রথম ‘প্রধান’। তারই নাম বা নামের সঙ্গে যুক্ত ‘গাজি’ পদবি থেকে এ অঞ্চলে নাম রাখা হয় গাজীপুর। গাজীপুর নামের আগে এ অঞ্চলের নাম ছিলো জয়দেবপুর। এ জয়দেবপুর নামটি কেন হলো, কতদিন থাকল, কখন, কেন সেটা আর থাকল না সেটিও প্রসঙ্গিক ও জ্ঞাতব্য। ভাওয়ালের জমিদার ছিলেন জয়ওদব নারায়ণ রায় চেধৈুরী। বসবাস করার জন্য এ জয়দেব নারায়ন রায় চৌধুরী। বসবার করার জন্য এ জয়দেব নারায়ন রায় চৌধুরী পীসাবাড়ি গ্রামে একটি গ্রহ নির্মাণ করেছিলেন।

গ্রামটি ছিলো চিলাই নদীর দক্ষিন পড়ে। এ সময় ওই জমিদার নিজের নামের সঙ্গে মিল রেখে এ অঞ্চলটির নাম রাখেন জয়দেবপুর এবং এ নামই বহাল ছিল মহকুমা হওয়ার আগ পর্যন্ত। যখন জয়দেবপুরকে মহকুমায় উ্নত করা হয়, তখনই পর নাম পাল্টে জয়দেবপুর রাখা হয়। উল্লেখ্য, এখনো অতীতকাতর-ঐতিহ্যমুখী স্থানীয়দের অকেই জেলাকে জয়দেবপুর বলেই উল্লেখ করে থাকেন।

গাজীপুর সদরের রেলওয়ে স্টেশনের নাম এখনো পজয়দেবপুর রেলওয়ে ষ্টেশন। তবে বিস্তারিত আলোচনায় গেলে বলতেই হয়, গাজীপুরের নাম জয়দেবপুর এবং তারও আগের নাম ভাওয়াল। গাজীপুরকে ১৯৮৪ ভ্রিস্টাব্দের ১ মার্চ জেলা এবং ২০১৩ খ্রিস্টাব্দের ৭ জানুয়ারী রোজ: সোমবার সিটি কর্পোরেশনের ঘোসনা করা হয়।

বিখ্যাত খাবার

  • কাঁঠাল
  • পেয়ারা

বিখ্যাত স্থান

  • ভাওয়াল রাজবড়ী
  • নুহাশ পল্লী
  • জাগ্রত চৌরঙ্গী
  • ভাওয়াল রাজ ম্মশানেশ্বরী
  • ভওয়াল জাতীয় উদ্যান
  • আনসার একাডেমি, সফীপুর
  • বলিয়াদী জমিদার বাড়ী
  • নাগবাড়ী, চান্দনা, চৌরাস্তা।
  • নাগরী, পাঞ্চুরা চার্চ
  • সাংগামাটিয়া, তুমিলিয়া, কালীগঞ্চ
  • বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক
  • মস পুড়া পার্ক, কাশিমপুর, গাজীপুর
  • নাগরী টেলেন্টিনুর সাধু নিকোলাসের গীর্জা
  • সিঙ্গার দীঘি (পাল রাজাদের রাজধানী নগরী)

গাজীপুরের উপজেলাসমূহ

  • কালিয়াকৈর উপজেলা
  • কালীগঞ্জ উপজেলা
  • কাপাসিয়া উপজেলা
  • গাজীপুর সদর উপজেলা
  • শ্রীপুর উপজেলা

গাজীপুর জেলার পোস্ট কোডসমূহ

নং জেলা থানা উপঅফিস পোস্ট কোড
গজীপুর গাজীপুর সদর B. O. F ১৭০৩
গজীপুর গাজীপুর সদর B. R. P ১৭০১
গজীপুর গাজীপুর সদর চন্দনা ১৭০২
গজীপুর গাজীপুর সদর গাজীপুর সদর ১৭০০
গজীপুর গাজীপুর সদর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ১৭০৪
গজীপুর কালিয়াকৈর কালিয়াকৈর ১৭৫০
গজীপুর কালিয়াকৈর সফিপুর ১৭৫১
গজীপুর কালীগঞ্জ কালীগঞ্জ ১৭২০
গজীপুর কালীগঞ্জ পুবাইল ১৭২১
১০ গজীপুর কালীগঞ্জ সান্তানপাড়া ১৭২২
১১ গজীপুর কালীগঞ্জ ভাওয়াল জামালপুর ১৭২৩
১২ গজীপুর কাপাসিয়া কাপাসিয়া ১৭৩০
১৩ গজীপুর মন্নুনগর এরশাদ নগর ১৭১২
১৪ গজীপুর মন্নুনগর মন্নুনগর ১৭১০
১৫ গজীপুর মন্নুনগর নিশাত নগর ১৭১১
১৬ গজীপুর শ্রীপুর বারমি ১৭৪৩
১৭ গজীপুর শ্রীপুর বাশামুর ১৭৪৭
১৮ গজীপুর শ্রীপুর বউবি ১৭৪৮
১৯ গজীপুর শ্রীপুর কাওরাইড ১৭৪৫
২০ গজীপুর শ্রীপুর সাতখামার ১৭৪৪
২১ গজীপুর শ্রীপুর শ্রীপুর ১৭৪০
২২ গজীপুর শ্রীপুর রাজেন্দ্রপুর ১৭৪১
২৩ গজীপুর শ্রীপুর রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাস ১৭৪২

আমরা জানতে পেরেছি গাজিপুরের বাস্তারিত বিষয় বস্তু। এমন নানা ধরনে তথ্য পেতে সব সময় আমদের সাথেই থেকেই। তো আজকের মত এখানেই শেষ করছে গাজীপুর জেলার বিভিন্ন তথ্য সম্পর্কিত আলোচনা।

Author: admin

1 thought on “গাজীপুর জেলার বিভিন্ন তথ্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *