ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে টাকা আয়ের উপায়

ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে টাকা আয়ের উপায়

Online income

অর্থ কামাতে কতই না কষ্ট করতে হয়। অনেক পরিশ্রম করে ও ঘাম ঝরিয়ে অর্থ আসে ঘরে। ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে কি আয় করা যায়? একটা উপায় হতে পারে ব্যাংকের মধ্যে টাকা রেখে সুদের মাধ্যমে আয় করা কিন্তু এটা হারাম। আর কি উপায় থাকতে পারে? আছে আরও কিছু হালাল উপায়। আপনি ঘুমিয়ে গেলেও আয় থেমে থাকবেনা। তাই ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে টাকা আয়ের উপায় সম্পর্কে আজকে আলোচনা করবো।

ব্লগিং

প্রযুক্তির এই যুগে ব্লগিং অর্থ উপার্জনের দারুণ জনপ্রিয় উপায়। প্রথমে একটি ডোমেইন ও হোস্টিং কিনে ফেলুন। এরপর সেখানে মজাদার ও আকর্ষনীয় লিখতে থাকুন।

লেখার ক্ষেত্রে মানুষের পছন্দকে গুরুত্ব দিতে হবে। তাহলে আয় করা সহজ হবে। আপনি যে বিষয়ে লিখুন না কেন, তা অবশ্যই জনপ্রিয় হতে হবে।

পণ্য বিক্রি

কোন বিষয়ে আপনার সমৃদ্ধ জ্ঞান থাকলে তাকে কাজে লাগান। ওই জ্ঞানের প্রয়োগে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন পণ্য তৈরি করুন। যেমন ই-বুক বা ভিডিও তৈরি।

এবার সেগুলোকে ব্লগে বিক্রি করুন। এর জন্য বাজারে ছোটাছুটি করতে হবেনা ।

সম্মানী নিন, আয় করুন

আপনার যদি সুর, অভিনয় বা লেখালেখি বিষয়ে আগ্রহ ও জ্ঞান থাকে, তো ঘুমিয়েই আয় করতে পারবেন। আপনার আয়ের পথ খোলা রয়েছে। কাজের বিনিময়ে ভালো সম্মানী পাবেন। সৃজনশীল কাজগুলো মানুষ ব্যবহার করবে। বিনিময়ে আপনাকে টাকা দিবে।

আপনার যদি সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রতিভা থাকে, তাহলে অনলাইনে এমর অনেক সাইট রয়েছে সেখানে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। সেখানে আপনার সৃজনশীল কাজ বেঁচা-কেনা চলবে।

লেখকেন দল

যদি  একটি দলের নেতৃত্ব দিতে পারেন, তাহলে কয়েকজন সদস্য সংগ্রহ করে একটা দল তৈরি করতে পারেন। এসব সদস্যদের কাছ থেকে ভালো মানের লেখা নিন এবং তার বিনিময়ে সম্মানী প্রদান করুন।

এসব লেখার তথ্যগুলো অনন্য ও আকর্ষনীয় বিষয় হবে। এবার এগুলো নিজের ব্লগে পোস্ট করুন। খুব সহজেই সেখান থেকে আয় করতে পারবেন।

ওয়েবসাইট তৈরি

ওয়েবসাইট তৈরি করতে শিখুন। ভালো র‌্যাস্কিং অর্জন করতে পারলে এসব সাইট বিভিন্ন ব্যক্তির কছে বিক্র করতে পারবেন।

সাইট বিক্রি করার জন্য অনলাইনে বিভিন্ন বাজার রয়েছে। যেমন- ফ্লিপ্পা। এসব অনলাইন বাজারে সাইট বিক্রি করে আপনি অনেক টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

তবে একট কথা মনে রাখতে হবে

আমরা অনেকেই কোন কাজ না শিখে অনলাইনে নেমে পরি কাজ করার জন্য। কিছু দিন পরে যখন আপনি কোন কাজ করতে পারেন না বা আপনার অনলাই থেকে আয় করতে পারছেন না।

তখন আপনি দোষ দেন অনলাইনের, কিন্তু কেন? অনলাইনের কি দোষ। আমি বলবো এটা সম্পূর্ন আপনার দোষ । আগে আপনি কাজ শিখেন তারপর কাজ করার চেষ্টা করেন।

ইনশাল্লা আমি কথা দিচ্ছি চাকরির থেকে বেশি আয় করতে পারবেন।

কিন্তু একট কথা হচ্ছে আপনাকে সময় দিতে হবে। যেকোন কাজ করতে গেলেই প্রথম প্রথম টাকার মুখ দেখা যায় না।

ধৈর্য ধারন করে লেগে থাকতে হয় ।তারপর একটা সময় অটো টাকা আসতে শুরু করে ।

আমরা চাকরি করতে গেলে পড়াশোনা শেষ করেও চাকরির জন্য আবার পড়তে হয়।

খুব লম্বা একটা সময় আপনাকে ব্যয় করতে হয় আপনাকে। তাও নিশ্চিত নয় যে আপনি ভালো কোন চাকনি পাবেন কিনা।

অনলাইনে এট নিশ্চিত যে আপনি চাকরি পাওয়ার জন্য যে সময় দেন সে সময় আপনাকে অনলানে দিতে হবে না।

আপনি শুধু ৬ মাস সময় অনলাইনে দিবেন। ৬ মাস পরে নিশ্চিত অনলাইন থেকে আপনার আয় আসা শুরু করবে।

অনলাইনে কাজ করতে হলে আপনাকে যে জিনিসগুলো প্রয়োজন

  • ১. ইন্টারনেট সংযোগ
  • ২. ল্যাপটপ বা ডেস্কটপ
  • ৩. সঠিক গাইড লাইট
  • ৪. যে বিষয়ে কাজ করবেন সে সম্পর্কে ভালো ধারনা থাকা
  • ৫. প্ররিশ্রম করার মন মানসিকতা
  • ৬. ধৈর্য শক্তি
  • ৭. কাজ করার আগ্রহ
  • ৮. এবং নিজের উপর বিশ্বাস রাখা

তো আজকে এখানেই শেষ করছি ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে টাকা আয়ের উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা।

সকলে ভালো থাকুন,

সুস্থ থাকুন।

টাকা আয়ের সেরা পথ অনলাইন

৫ টি কাজ করে আয় করুন মাসে ৩০ হাজার টাকা

অনলাইনে আয় করার ১০ টি নির্ভরযোগ্য উপায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *